Placeholder canvas
কলকাতা মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪ |
K:T:V Clock

Dilip Ghosh | তৃণমূল যত দুর্নীতিগ্রস্তদের সঙ্গে থাকে, অমর্ত্য-বিশ্বভারতীর জমি বিতর্কে বিস্ফোরক দিলীপ

Updated : 6 May, 2023 2:50 PM
AE: Hasibul Molla
VO: Priti Saha
Edit: Monojit Malakar

বাঁকুড়া: ফের বিস্ফোরক মন্তব্য বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষের (Dilip Ghosh)। অমর্ত্য সেন (Amartya Sen) ও বিশ্বভারতীর (Visva Bharati University) জমি বিবাদে তৃণমূলের (TMC) ধরনা প্রসঙ্গে বিতর্কিত মন্তব্য দিলীপের। তিনি বলেন, তৃণুমূল যত দুর্নীতিগ্রস্তদের সঙ্গে থাকে। কোনও ভদ্র-সভ্য লোকের সঙ্গে থাকে না। অমর্ত্য সেন বিশ্বভারতীর জমি দখল করে রেখেছেন এটা রেকর্ড বলছে। জমিটা ছেড়ে দিলেই মিটে যায়। যারা সরকারি জমি লুঠ করছে, তারা তো সেই সব লোকের সঙ্গেই থাকবেন। অমর্ত্য সেন বাংলার গৌরব হতে পারে কিন্তু বাংলার কিছু লুঠ করার অধিকার নেই। গৌরবকে নষ্ট করেছেন ওঁনারাই। একজন নোবেল প্রাপ্ত ব্যাক্তি যদি জমি নেই তাঁর সম্পর্কে যদি বিতর্ক হয়, তা মোটেই গৌরবের নয়। শনিবার বাঁকুড়ার মাচানতলায় চায়ে পে চর্চায় যোগ দিয়ে এমনই বলেন দিলীপ ঘোষ। ইতিমধ্যে তাঁর এই মন্তব্য ঘিরে শোরগোল পড়ে গিয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে।

এদিকে আজই অমর্ত্য সেনকে (Amartya Sen) হেনস্তার প্রতিবাদে শান্তিনিকেতনে তাঁর বাড়ি প্রতীচীর সামনে ধরনায় বসছে তৃণমূল। সেখানে অংশ নেবেন চিত্রশিল্পী শুভাপ্রসন্ন, যোগেন চৌধুরী, গায়ক কবির সুমন, চলচ্চিত্র পরিচালক গৌতম ঘোষ প্রমুখ। বিশ্বভারতীর (Visva Bharati University) বুলডোজার নিয়ে অমর্ত্য সেনের বাড়ি ভাঙতে এলে রুখে দাঁড়ানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেইমতো আজ থেকে  অমর্ত্য সেনকে লাঞ্ছনা ও উচ্ছেদের প্রতিবাদে ধরনা দিতে চলেছে তৃণমূল। এরই মাঝে দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্য ঘিরে শুরু হয়েছে চর্চা। 

নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেনের বিরুদ্ধে ১৩ ডেসিমেল জমি দখলের অভিযোগ করেছে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। একাধিকবার জমি ফেরতের নোটিস দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ৬ মে জমি খালি করার চূড়ান্ত সময়সীমা বেঁধে দিয়েছে বিশ্বভারতী। অমর্ত্য সেনের বাড়িতে নোটিসও দিয়েছে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। হুমকির অভিযোগও উঠেছে। এরপরেই অমর্ত্য সেনের বাড়ি থেকে ১০০ মিটার দূরে অস্থায়ী মঞ্চ তৈরির কাজ শুরু হল বুধবার। বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ যেভাবে অমর্ত্য সেনকে হেনস্তা করছে, তার প্রতিবাদে আগামী ৬ মে অবস্থান বিক্ষোভ করা হবে এখানে। শান্তিনিকেতন ও বোলপুরের বিভিন্ন মানুষ এই বিক্ষোভে সামিল হবেন। ইতিমধ্যেই প্যান্ডেল তৈরি করার জন্য বাঁশ পড়ে গিয়েছে।‌

উল্লেখ্য, বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী অভিযোগ তুলেছেন, অমর্ত্য সেন তাঁর শান্তিনিকেতনের বাড়িতে বিশ্বভারতীর ১৩ ডেসিমেল জমি দখল করে রেখেছেন। চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে তিনবার চিঠি দিয়ে সেই জমি ফেরত চেয়েছে বিশ্বভারতী। বিশ্বভারতীর তরফে ১৯৭১ সালের ভূমি দখলদারি উচ্ছেদ আইনের হুঁশিয়ারির নোটিসও দেওয়া হয়েছে অমর্ত্য সেনকে। ১৫ দিনের মধ্যে জমি খালি করার নির্দেশ দিয়েছে বিশ্বভারতী। না হলে বলপ্রয়োগ করে জমির দখল নেওয়া হবে বলেও নোটিসে হুঁশিয়ারি দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।