Placeholder canvas
কলকাতা বুধবার, ১২ জুন ২০২৪ |
K:T:V Clock

National Education Policy | মোদির শিক্ষানীতি মেনেই চার বছরের ডিগ্রি কোর্স রাজ্যে

Updated : 31 May, 2023 4:10 PM
AE: Hasibul Molla
VO: Priti Saha
Edit: Monojit Malakar

কলকাতা:  জাতীয় শিক্ষানীতিকে (National Education Policy) মান্যতা দিয়ে রাজ্য চালু হল স্নাতক স্তরে চার বছরের ডিগ্রি কোর্স (Four year degree course at graduate level)। চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকেই কলেজগুলিতে চার বছরের স্নাতক স্তরের কোর্স চালু করা হবে বলে জানানো হয়েছে শিক্ষা দফতরের তরফে। একই সঙ্গে কলেজগুলোতে অনলাইনের মাধ্যমে ভর্তি করা হবে বলে জানানো হয়েছে। রাজ্য যে কেন্দ্রীয় পোর্টালের মাধ্যমে এবছর ভর্তির সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছিল তা আপাতত হচ্ছে না। তাই উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান অর্থাৎ কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলো নিজেরা যেভাবে অনলাইনে ভর্তি নিয়ে থাকে সেই প্রক্রিয়াতেই ভর্তি হবে বলে জানানো হয়েছে। 

এবার আর তিন বছরে নয়, পড়ুয়ারা স্নাতক হতে চার বছর লাগবে। শিক্ষা দফতরের তরফ থেকে জানানো হয়েছে,  সব সরকারি ও সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত কলেজে চলতি শিক্রাবর্ষ থেকেই এই নীতি কার্যকর হবে। কেন্দ্রীয়ভাবে কলেজে ভর্তির যে প্রক্রিয়া চালু করার কথা ছিল, তা আপাতত করা হচ্ছে না। প্রতিটি কলেজে আলাদাভাবে অনলাইনে ভর্তির প্রক্রিয়া চালু থাকবে। অর্থাৎ পুরনো নিয়মেই ভর্তি হতে পারবেন পড়ুয়ারা। রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে কীভাবে নতুন পাঠক্রম ও রূপরেখা তৈরি করা যায়, সেই বিষয় সিদ্ধান্ত নিতে রাজ্য তৈরি করেছে ৬ সদস্যের বিশেষজ্ঞ কমিটি। বিশেষজ্ঞ কমিটির চেয়ারম্যান করা হয়েছিল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুরঞ্জন দাসকে।

জাতীয় শিক্ষানীতিকে মান্যতা দেওয়া নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু (Bratya Basu) বলেন,   একটি বিভ্রান্তমূলক খবর প্রচারিত হচ্ছে যে রাজ্য সরকার ন্যাশনাল এডুকেশন পলিসি মেনে নিয়েছে। এটিকে প্রলাপ বললে কম বলা হবে। রাজ্য সরকার একটি সম্পূর্ণ পৃথক স্টেট এডুকেশন পলিসি তৈরি করেছে, যেখানে সমস্ত ‘বেস্ট প্র্যাকটিসেস’ বা ভালো ব্যবস্থাগুলিকে নেওয়া হয়েছে। এই রাজ্য শিক্ষানীতি দ্রুত আপলোড হবে। ৪ বছরের ডিগ্রি কোর্স চালু না করলে আমাদের ৭ লক্ষ ছাত্রছাত্রীরা সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে প্রতিযোগিতায় অংশই নিতে পারতো না। এক্ষেত্রে তাদের বাইরের রাজ্যে গিয়ে পড়ার প্রবণতা বড়ে যেতো। যারা আর্থিক ভাবে অস্বচ্ছল, তারা বিপদে পড়তো। এই সমস্ত কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

শিক্ষানীতির নিয়ে বাম আমলের শিক্ষা ব্যবস্থার সমালোচনা করেন ব্রাত্য।  তিনি বলেন, ৩ বছরের ডিগ্রি কোর্স রেখে দিলে বিগত বাম সরকারের ক্লাস ওয়ান থেকে ইংরেজি তুলে দেওয়া বা ব্রিজ কোর্স চালু করার মতো বা হয়ত তার থেকেও বেশি ছাত্রবিরোধী সিদ্ধান্ত হত। মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় রাজ্যের আপামর ছাত্রছাত্রীদের স্বার্থের কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত চালু করতে বলেছেন।