Placeholder canvas
কলকাতা সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪ |
K:T:V Clock

RBI | Shaktikanta Das | অর্ধেক ২০০০ টাকার নোট ফিরে এসেছে, জানালেন রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর 

Updated : 8 Jun, 2023 8:32 PM
AE: Hasibul Molla
VO: Priti Saha
Edit: Silpika Chatterjee

নয়াদিল্লি: গত মাসে ভারতের রিজার্ভ ব্যাঙ্ক (Reserve Bank of India) ঘোষণা করেছিল, বাজার থেকে সমস্ত ২০০০ টাকার নোট তুলে নেওয়া হবে। রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর শক্তিকান্ত দাস (Shaktikanta Das) তারও আগে (৩১ মে, ২০২৩) জানিয়েছিলেন, মোট ৩.৬২ লক্ষ টাকা মূল্যের ২০০০ টাকা বাজারে ছড়িয়ে আছে। বৃহস্পতিবার তিনি জানিয়ে দিলেন, নোট তুলে নেওয়ার ঘোষণার পর এ পর্যন্ত ১.৮০ লক্ষ টাকা মূল্যের ২০০০ টাকার নোট ব্যাঙ্কিং সিস্টেমে ফিরে এসেছে। অর্থাৎ প্রায় ৫০ শতাংশই ঘরে তুলেছে আরবিআই। তিনি আরও জানান, ৮৫ শতাংশই ব্যাঙ্কে ডিপোজিটের (Bank Deposit) মাধ্যমে আসছে যা প্রত্যাশিত।

গত ১৯ মে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক ২০০০ টাকার নোট তুলে নেওয়ার ঘোষণা করে। তারা জানায়, এই পদক্ষেপ তাদের মুদ্রা ব্যবস্থাপনা পক্রিয়ার অন্তর্গত। ২৩ মে থেকে মানুষ তাদের কাছে থাকা ২০০০ টাকার নোট ব্যাঙ্কে নিয়ে গিয়ে সমমূল্যের অন্য নোটে বদলাতে পারবে। তবে এক একবারে ২০০০০ টাকার বেশি বদলানো যাবে না বলে জানিয়ে দেওয়া হয়। চলতি বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময় আছে এই প্রক্রিয়ার জন্য। এদিন সাধারণ মানুষকে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দেন আরবিআই গভর্নর এবং একই সঙ্গে শেষ মুহূর্তের হুড়োহুড়ি থেকে বিরত থাকতে বলেন।

২০১৬ সালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (PM Narendra Modi) নোটবন্দির (Demonetization) ঘোষণার পর ডামাডোলের সৃষ্টি হয়েছিল। এক ধাক্কায় ১০০০ এবং ৫০০ টাকার নোট বাতিল করে দেন তিনি। ব্যাঙ্ক, এটিএমে লম্বা লাইন তখন রোজকার দৃশ্য। জালনোটের (Fake Currency) কারবার ধ্বংস করতে এবং কালো টাকা (Balck Money) দেশে ফেরাতে নোটবন্দির সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। ক্রমে ক্রমে দেখা গেল, কালো টাকার দেখা নেই এবং নোট জাল চলছে বহাল তবিয়তেই। যাইহোক, এবার ২০০০ টাকার নোট তুলে নেওয়ার ঘোষণার পর স্বাভাবিকভাবেই সাধারণ মানুষ প্রথম চোটে আঁতকে উঠেছিল। 

এদিন আরবিআই (RBI) গভর্নর জানিয়ে দিলেন, আতঙ্কের কোনও কারণ নেই। ৫০০ টাকার নোট তুলে নেওয়ার কোনও পরিকল্পনা নেই, এবং ১০০০ টাকার নোট ফিরিয়ে আনারও কোনও সম্ভাবনা নেই। এ নিয়ে জল্পনা না করার অনুরোধ করেন শক্তিকান্ত দাস।