Placeholder canvas
কলকাতা মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪ |
K:T:V Clock

WFI Brij Bhushan | ব্রিজভূষণের ‘যুগাবসান’ ফেডারেশন দায়িত্ব যাবে নতুন নেতৃত্বর হাতে!

Updated : 8 Jun, 2023 6:55 PM
AE: Samrat Saha
VO: Soumi Ghosh
Edit: Silpika Chatterjee

মুম্বই: ক্রীড়ামন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর (Anurag Thakur) প্রায় ছয় ঘন্টা ম্যারাথন বৈঠক করেন কুস্তিগিরদের (Wrestlers) সঙ্গে। ইন্টার্নাল কমপ্লেন কমিটি প্রধান হিসেবে মহিলাকে দায়িত্ব দেওয়া হোক এমন চাহিদা ছিল। বৈঠক থেকে যা উঠে এসেছে তা ভারতের রেসলিং ফেডারেশনে (Wrestling Federation of India) পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ও ক্ষমতা বদলের সম্ভাব্য প্রতিশ্রুতি দেওয়া বয়েছে। বলা যায় ডব্লুএসআইয়ের প্রায় এক দশক ধরে রাজ করার পর এবার ব্রিজভূষণের (Brij Bhushan) যুগাবসান হতে চলেছে। ভারতের রেসলিং ফেডারেশন দায়িত্ব যাবে নতুন নেতৃত্বর হাতে।  

জানা গিয়েছে, সরকার কুস্তিগিরদের আশ্বস্ত করেছে ব্রিজভূষণের পরিবারের কাউকে আসন্ন WFI নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে দেওয়া হবে না। এবং, আরও গুরুত্বপূর্ণ, তিন প্রতিবাদী কুস্তিগির বজরং পুনিয়া, সাক্ষী মালিক এবং ভিনেশ ফোগাটের “মতামত” বিবেচনা করা হবে। অনুরাগ জানিয়েছেন ১৫ জুনের মধ্যে তদন্ত শেষ করে চার্জশিট দাখিল করা হবে। রেসলিং ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়ার নির্বাচন শেষ হবে ৩০ জুনিয়র মধ্যে।

মঙ্গলবার রাত ১২টা ৪৭ মিনিটে টুইট করেন অনুরাগ। বুধবার মধ্যরাতের পর অনুরাগ টুইট করে লেখেন, কুস্তিগিরদের সমস্যা নিয়ে আলোচনা করতে ইচ্ছুক সরকার। বৈঠকের পরে, মালিক এবং পুনিয়া সাংবাদিকদের বলেন,  যে তাদেরও আশ্বস্ত করা হয়েছে যে তাদের বিরুদ্ধে দায়ের করা এফআইআরগুলি প্রত্যাহার করা হবে। সাধারণ কথাবার্তা হয়েছে তাঁদের মধ্যে। কুস্তিকর্তা ব্রিজভূষণ সিংহকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন তাঁরা। প্রতিবাদী কুস্তিগির এবং তাদের অনেক সমর্থককে ২৮ মে আইনশৃঙ্খলা লঙ্ঘনের জন্য মামলা করা হয়েছিল যখন তারা অনুমতি ছাড়াই নতুন সংসদ ভবনের দিকে মিছিল করেছিল তবে, মালিক এবং পুনিয়া উভয়েই জোর দিয়েছিলেন যে তাদের আন্দোলন শেষ হয়নি এবং তারা শুধুমাত্র তাদের প্রতিবাদ আন্দোলন ১৫ জুন পর্যন্ত স্থগিত করেছে। একজন মহিলাকে প্রধান করে ডব্লিউএফআইয়ের অভ্যন্তরীণ অভিযোগ কমিটি গঠন করা উচিত। বুধবারের বৈঠকের পরে, দরজা এখন দৃঢ়ভাবে বন্ধ রয়েছে এমনকি সিংয়ের পরিবারের সদস্যদের বা ঘনিষ্ঠ সহযোগীদের জন্যও।

মেয়েকে যৌন হেনস্তা করেননি কুস্তি ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট ব্রিজভূষণ শরণ সিং (Brij Bhushan Sharan Singh)। তবে মেয়ের প্রতিযোগিতার সময়ে তার বিরোধিতা করেছিলেন প্রেসিডেন্ট।  এক সাক্ষাত্কারে অভিযোগকারিণী নাবালিকার বাবা স্পষ্ট করেছেন যে তারা কেবল বয়ানটি পরিবর্তন করেছেন। ব্রিজভূষণের বিরুদ্ধে আমাদের কোনও আক্রোশ নেই। আমার মেয়ে  সঙ্গে WFI বৈষম্য করার পরে রাগের মাথায় অভিযোগ দায়ের করে ফেলেছিলাম।  তিনিবলেন, কোনও লোভ, চাপ বা ভয় ছাড়াই আমরা আমাদের বিবৃতি পরিবর্তন করেছি।