Placeholder canvas
কলকাতা সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪ |
K:T:V Clock

Dilip Ghosh | মমতাকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছে, মোদিকে মোকাবিলা হিম্মত নেই, কটাক্ষ দিলীপের

Updated : 19 Jul, 2023 8:01 PM
AE: Hasibul Molla
VO: Soumi Ghosh
Edit: Silpika Chatterjee

কলকাতা: ভারতের সঙ্গে ইন্ডিয়ার লড়াই। মোদির (Narendra Modi Prime Minister of India) সঙ্গে না। বিরোধীদের নিয়ে মন্তব্য  বিজেপি-র সর্বভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষের (Dilip Ghosh)। দুদিন ব্যাপি বিজেপি (BJP) বিরোধীদের মহাবৈঠকে জোটের নাম ‘ইন্ডিয়া’। দেশের ২৬টা বিরোধীদল আসন্ন লোকসভা ভোটে কেন্দ্রের মসনদ থেকে মোদিকে উৎখাতের ডাক দিয়েছে। রাহপল গান্ধী বলেন, এই লড়াই ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে এনডিএর। তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি করেন, এই লড়াই  বিজেপির স্বৈরাচারী রাজতন্ত্রের বিরুদ্ধে। বুধবার নিউটাউনের ইকোপার্কে দিলীপ ঘোষ বিরোধীদের কটাক্ষ করে বলেন, এতদিন ভারতকে গোলাম করে রেখেছিলেন, যাদের লোকেরা মনের দিক থেকে এতদিন গোলাম হয়ে থেকেছেন, তারা ইন্ডিয়ার প্রতিনিধি। ভারতের সঙ্গে এখন মোদির নাম জড়িয়ে আছে। দেশে বিদেশে সম্মান আসছে। দেশ তার নিজের আদর্শে এগোচ্ছে। তাই ভারতের জয় হবে।

তৃণমূলনেত্রীকে আক্রমণ করে বিজেপি সাংসদ বলেন, গতবারের অর্থাৎ ২০১৯ এর ফল টা একবার দেখে নিন। মোদি হঠাও দেশ বাঁচাও শ্লোগান দিয়ে ওদের ১২ টা আসন কমে গিয়েছে। বিরোধীদের জোট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, অন্যান্য পার্টি,  যাদের সরাসরি মোদিজিকে মোকাবিলা করার হিম্মত নেই, তারাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছেন। কারণ উনি একটুতেই হাওয়া খেয়ে যান। তাই কখনও কেজরিওয়াল, কখনও নীতিশ কুমার হাওয়া দিচ্ছেন। জানিনা, ন্যাড়া কবার বেলতলা যায়। ভারত মাতা কি জয় দিয়ে আমরা শুরু করেছি। আর ওরা দাসত্বের ইন্ডিয়ার কথা বলছে।  ভারত ও ইন্ডিয়ার লড়াই চলছে। ভারত বিশ্বে নতুন করে জেগে উঠছে। দুনিয়ায় ভারতের সম্মান বাড়ছে। যারা ইন্ডিয়া নিয়ে চলছেন, তাদের বিসর্জন হবে।
 মমতার দেওয়া নামের ক্যারিশমা ওনারা চাইছেন মমতাকে নেতা বানিয়ে মোদির সামনে ছুঁড়ে দিতে। কেউ এরিনায় ঢুকে খেলতে চাইছে না। যারা ঢুকেছে, তাদের অত্যন্ত দূরাবস্থা। অনেকের আর সাংসদ নেই। তাই কেউ মোদির সামনে যাবে না।

মঙ্গলবার ছিল বেঙ্গালুরুতে বিরোধী বৈঠকের দ্বিতীয় দিন। সেই বৈঠকে হাজির ছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee), অরবিন্দ কেজরিওয়াল, অখিলেশ যাদব-সহ বিরোধী দলের তাবড়-তাবড় নেতারা। যৌথ সাংবাদিক সম্মেলনের আগেই কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়্গে বৈঠকে জানিয়ে দেন, তাঁর দল ক্ষমতার জন্য কিংবা প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য লালায়িত নয়। মহাবৈঠকের দ্বিতীয় দিনের উদ্বোধনী ভাষণে খাড়্গে আরও বলেন, কংগ্রেসের লক্ষ্য আবার ক্ষমতা দখল করা নয়। এই জমায়েতের উদ্দেশ্য হল আমাদের দেশের সংবিধান, গণতন্ত্র, ধর্মনিরপেক্ষতা এবং সামাজিক ন্যায়বিচারকে রক্ষা করা। ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্টাল ইনক্লুসিভ অ্যালায়েন্সের পরবর্তী বৈঠক বসবে মুম্বইয়ে জানান খাড়্গে।