Placeholder canvas
কলকাতা মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪ |
K:T:V Clock

Panchayat Election 2023 | Bhirbhum | অনুব্রতহীন বীরভূমে ‘শান্তিতে’ চলছে ভোট 

Updated : 8 Jul, 2023 4:40 PM
AE: Samrat Saha
VO: Soumi Ghosh
Edit: Silpika Chatterjree

বীরভূম: ত্রিস্তর গ্রাম পঞ্চায়েত নির্বাচনে যখন দিকে দিকে অশান্তর পরিবেশ, বেলাগাম সন্ত্রাস চলছে। তখনই বীরভূম জেলায় দেখা গেলো অন্য ভোটের চিত্র। অনুব্রতহীন বীরভূম কার্যত শান্ত বলাই যায়। খা খা করছে অনুব্রতর নিচুপট্টি বাড়ি থেকে শুরু  করে তাঁর বোলপুরে জেলা তৃণমূলের প্রধান দলীয় কার্যালয় চত্বর। 

এই প্রথম নির্বাচনে বীরভূম জেলায় হাজির নেই তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। বর্তমানে গরুপাচারকাণ্ডে তিহার জেলে বন্দি তিনি। তার বাড়ি বীরভূমের নিচুপট্টি কার্যত শান্ত। তার দলীয় বোলপুরের জেলা প্রধান তৃণমূল কার্যালয় ফাঁকা। নেই দলীয় কর্মীদের ভিড়।  

গণতন্ত্রের উৎসবে অনুব্রত মণ্ডল মানেই গরম গরম ডায়লগ। কখনও তিনি বলছেন, চরাম চরাম ঢাক বাজবে। কখনও তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছিল, খেলা হবে। রাস্তায় উন্নয়ন দাঁড়িয়ে আছে। বিরোধীদের গুড় বাতাসা জল খাওয়ানো হবে। কার্যত বলাই যায় রাজ্যের মানুষের নজর থাকতো বীরভূমে। 

কিন্তু ২০২৩ ত্রিস্তর গ্রাম পঞ্চায়েত নির্বাচন বীরভূমে সেই সমস্ত ছবি উধাও। কর্মীদের প্রিয় কেষ্ট’দা নেই। নির্বাচনের দিন সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠতেন অনুব্রত। বাড়িতে শিবের পুজো করে মোটরবাইকে করে ভোট দিতে যেতেন। তার পিছন পিছন থাকতো অসংখ্য সংবাদমাধ্যম কর্মীদের ভিড়। সে সব ছবি এখন ইতিহাস। 

বীরভূম জেলার বোলপুরে তৃণমূলের প্রধান দলীয় কার্যালয়। ভোটের দিন কেষ্টর পার্টি অফিসটাকে কন্ট্রোল রুম বানিয়ে দিয়েছিল। কন্ট্রোল রুম থেকেই নির্বাচন প্রক্রিয়া কেমন চলছে? খোঁজ খবর নিতেন তিনি। ঘনঘন ফোন করতো ব্লক, অঞ্চল সভাপতিদের। বুথ সভাপতিদের নির্দেশ দিত ভোট ধীরগতিতে চলছে, হাত চালাও। কোথাও আবার একটু অসুবিধা বুঝলে, ফোনেই ধমক দিত কেষ্ট। সে সব ছবি যেন মেঘের মতো মুছে গেছে বোলপুর থেকে। 

অনুব্রত ঘনিষ্ঠ তৃণমূল নেতা বিকাশ রায়চৌধুরী জানান, কেষ্ট’দা জেলার সংগঠনকে তৈরি করে দিয়ে গিয়েছে। তা৬র দেখানো পথেই ভোট হচ্ছে। তবে তিনি অনুপস্থিত। তার না থাকা পড়তে পড়তে উপলব্ধি করছি।